হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী
শ্রদ্ধাভাজন লেখক আবদুল গাফফার চৌধুরীর হাজার লক্ষ উদ্বৃতির মাঝে কয়েকটি আমার মনে ভীষণভাবে দাগ কেটেছে। “তিনি তো শুধু একজন ব্যক্তি নন, একটি প্রতিষ্ঠান, একটি আন্দোলন, একটি বিপ্লব, একটি অভ্যুত্থান, জাতি নির্মাণের কারিগর, মহাকাব্যের অমরগাঁথা এবং একটি ইতিহাস’’ আর ইনি হলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যার জন্ম হয়েছিলো প্রায় ৯১ বছর পূর্বে ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ। সেদিন থেকে বাঙালী জাতির স্বাধীনতার সংগ্রাম শুরু হলো। জন্ম নিলো ৭ মার্চ, ২৬ মার্চ এবং ১৬ ডিসেম্বরের মত পৃথিবী কাঁপানো বাঙালী জাতির জীবনে বেশ কিছু সর্বশ্রেষ্ঠ স্মরণীয় দিনের। সৃষ্টি হলো বিশাল পৃথিবীর মাঝে ছোট্ট, একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে চলমান নোয়াখালীর জন্য লিখেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর এ কে এম সাঈদুল হক চৌধুরী।Details
নোয়াখালীর পরকল্পিত উন্নয়ন ,সরকারের করণীয়
স্বাধীনতার ৪০ বছর পূর্ওির বর্ষে মহাজোট সরকারের ২ বছর মেয়াদ শেষ হয়ে তৃতীয় বর্ষে পদার্পন করেছে। জাতীয় ভাবে সুশিল সমাজ ও বুদ্ধিজীবিরা অতিক্রান্ত সময়ের মূল্যায়ন করেছে নানাহভাবে।স্থানীয় ভাবে মূল্যায়ন করছে জনগন। বিশেষ করে আইন শৃঙ্খলা, বেকারত্ব নিরসন,জনগনের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন,মানুষের কর্ম সৃষ্ঠির প্রয়াস, স্থানীয় উন্নয়নের যোগান বৃদ্ধিকরা, সামাজিক ন্যায় বিচার, ইত্যাদি বিষয় গুলোতে জনপ্রতিনিধিদের কমিটমেন্ট পুরনে হিসেব কষা হচ্ছে।সব কিছুর বাইরে রাজনৈতিক সৌহার্দ, অসুস্থ রাজনৈতিক ধারার পরির্তন কতটুকু হয়েছে তা ও বিবেচনা করছে নতুন প্রজম্মের তরুণ তরুণীরা। নোয়াখালীর উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে চলমান নোয়াখালীর জন্য লিখেছেন বিজন সেন....Details
নোয়াখালী : দক্ষিণের বাতিঘর
নোয়াখালী : দক্ষিণের বাতিঘর
নোয়াখালী নামে কেনোশহর নেই। একসময় ছিল। সে শহরটা কেমন ছিল আমার খুব জানতে ইচ্ছে করে। নদী আমাদের কাছ থেকে শহর কেড়ে নিয়েছে। কিন্তু প্রয়োজন কখনো দূর্যোগ মানেনা। তাই আরেক জায়গায় নতুন করে মানুষ শহর গড়ে নিয়েছে। সেই শহরটির নাম মাইজদী কোর্ট। চলমান নোয়াখালীর প্রকাশনা বার্ষিকীতে লিখেছন ফরিদা রনি...Details
পূণ্যভূমি নোয়াখালী-  জয়তু একরাম
পূণ্যভূমি নোয়াখালী- জয়তু একরাম
প্রচলিত মনীষিবাক্য হচ্ছে, যে জাতি গুণীদের সম্মান দিতে জানেনা সে জাতিতে গুণী মানুষের জম্ম হয়না। আমরা স্বাধীনতা পূর্ব ও পরবর্তী সময়ে ইতিহাসের কালোবাঁকে অনেক গুনি, বিদগ্ধজনদের হারিয়েছি। সে হারানোর তালিকা এত দীর্ঘ যে, তা দিয়ে একটি উপন্যাসসম প্রকাশনা হতে পারে। বিভিন্ন প্রতিকূলতার মধ্যেও জাতিকে অগ্রগামী কর্রা ক্ষেত্রে যে কয়জন গুণীজন এখনো বেচেঁ আছেন তাদের ও পথ চলা কুসূমাস্তীর্ণ নয়। চলমান নোয়াখালীর প্রকাশনা বার্ষিকীতে লিখেছেন বিজন সেন...Details
সাংবাদিকরাও মানুষ
সাংবাদিকরাও মানুষ
বার সেপ্টেম্বর, রোববার, পবিত্র ঈদুল ফিতর। অন্যসব পেশার মানুষরা যখন দিনটি উদ্যাপন করছে মহা আনন্দে। তখন সাংবাদিকদের আরোও দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হয়েছে। আমিও অফিসের এ্যাসাইনমেন্টে নিমতলীর অগ্নিকাণ্ডে স্বজনহারাদের ঈদ উদ্যাপনের চিত্র দেখতে ঈদের দিন সকালেই ছুটে গেছি সেখানে। দুপুর পর্যন্ত তাদের সঙ্গে কথা বলে বিকেলে অফিসে এসে নিউজটি জমা দিলাম। এ দিন ডেস্কেও রিপোর্টিং এ লোক কম থাকায় বাড়তি অনেক কাজ করতে হয়েছে। ঈদের দিন সকাল থেকেই ঢাকায় বসবাসকারী আমার চাচা ও এক আপু ফোন করছে তাঁদের বাসায় যেতে। গ্রামের বাড়ি থেকেতো ফোন আসছে অনেকদিন ধরে। তারা বুঝতেই চাইছে না ঈদের দিনও যে কাজ করতে হয়। চলমান নোয়াখালীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লিখেছেন সাংবাদিক জাহিদুর রহমান...Details
সাংবাদিকতা কি পেশা না নেশা ?
সাংবাদিকতা কি পেশা না নেশা ?
প্রশ্নটি অনেকের মত আমাকেও ভাবায়। বস্তুত সাংবাদিকতা একটি সর্বজন স্বীকৃত সেবাধর্মী পেশা। বর্তমানে এর ব্যপকতা পেশাটির পটভূমিকে অনেক বেশি উজ্জ্বল করেছে আজ পৃথিবীর কাছে। অথচ এ পেশার অন্তর্নিহিত সমস্যাসমূহ অপ্রকাশিত সাংবাদিকদের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু পাঠকদের কাছেই। আমি বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের অধিকাংশ সাংবাদিক এ পেশায় কাজ করে শুধুমাত্র বিবেকের নেশার কারণেই। চলমান নোয়াখালীর প্রকাশনা বার্ষিকী সংখ্যায় লিখেছেন তন্ময় মজুমদার...Details
উত্তম নেতা...
উত্তম নেতা...
আমরা সবাই একাধারে উন্নয়ন উন্নয়ন বলে চিল্লাচ্ছি। আমাদের নেতারা বলছেন উন্নয়নের জোয়ারে দেশ ভেসে যাচ্ছে। সরকার বলছে উন্নয়নের চৌহদ্দি বাড়াতে হচ্ছে বলে ফি-বছর আমাদের এডিপি বাড়ছে। আবার সাদা-কালো পোষাকের সিভিল সমাজ রাতগুজারে-ই সভা সমিতি বসায়; এজেন্ডা একটা উন্নয়ন দরকার এবং তা করতেও হবে যে কোন মূল্যে। যে যেখানে আছেন সবার বুক পকেটে একখান ‘উন্নয়ন ফর্দ’ ভাজ করা থাকে এবং সব্বার ফর্দের মাল-মসলা কিন্তু প্রায়ই এক। উত্তর থেকে দক্ষিণে রাস্তা, পূর্ব- পশ্চিমের রাস্তার আয়তন বাড়ানো, দক্ষিণের নদী ভরাট করে একটা কিছু করা, রাস্তার কূলের জমিতে আবাসন প্রকল্প; এমন সব ভারী ভারী উন্নয়ন পরিকল্পনা। চলমান নোয়াখালীর প্রকাশনা বার্ষিকীতে লিখেছেন প্রান’র নির্বাহী প্রধান নুরুল আলম মাসুদ...Details
এবার চাই উন্নত নোয়াখালী প্রতিষ্ঠা
এবার চাই উন্নত নোয়াখালী প্রতিষ্ঠা
গত ক’দিন আগে দেশের সবক’টি দৈনিকে একযোগে ছাপা হয় একটি উদ্বেগের খবর। জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান এ তথ্য প্রকাশ করে। যাতে উল্লেখ করা হয় জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে এশিয়ায় সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশ। স্বভাবতই এই ঝুঁকি দেশের উপকূলীয় এলাকাকে ঘিরেই। দেশের অন্যতম ও ঝূঁকিপূর্ণ উপকূলীয় জেলা নোয়াখালীর বাসিন্দা হওয়ায় আমার উদ্বেগের কারণে। সম্পাদকের টেবিল থেকে লিখেছেন রুদ্র মাসুদ.....Details
চলমান নোয়াখালীর অগ্রযাত্রা
চলমান নোয়াখালীর অগ্রযাত্রা
গত কিছুদিন ধরে অসম্ভব রকম ব্যস্ত ছিলাম। ব্যক্তিগত ও পারিবারিক কাজে। ছুটাছুটি হচ্ছিলো ঢাকা নোয়াখালী। যেন নিঃশ্বাস নিতে পারছিলাম না। ঠিক এরি মধ্যে রুদ্র মাসুদ ফোন করে বসলেন। ‘চলমান নোয়াখালীর’ বর্ষপুর্তি। পত্রিকার বিশেষ সংখ্যা বের হবে। লেখা দিতে হবে। হঠাত করে এ ফরমায়েশ আমার জন্য মুশকিল হয়ে দাঁড়াল। কিন্তু যত বড় মুশকিলই হোক রুদ্রকে উপেক্ষা করা আমার জন্য অসম্ভব। সেও নাছোড়বান্দা। লেখার জন্য প্রতিনিয়ত ফোনে তাগাদা দিয়েই চলেছে। অবশেষে তারই জয় হলো। ঢাকা থেকে নেমেই মধ্যরাতে ক্লান্ত শরীর নিয়ে তার জন্য কম্পিউটারের সামনে বসতে হলো। কী-বোর্ডে আঙুল চালাতে চালাতে তার উদ্বিগ্ন মুখচ্ছবি বার বার আমার মনের মনিটরে ভেসে উঠছিলো। চলমান নোয়াখালীর বর্ষপূর্তী সংখ্যার জন্য লিখেছেন সাংবাদিক মাহমুদুল হক ফয়েজ...Details
বিজাতীয় সংবাদপত্রের স্বপ্নবাজ
বিজাতীয় সংবাদপত্রের স্বপ্নবাজ
রুদ্র’র চলমান নোয়াখালী চলছে। আতুর ঘরে প্রসবকালীন জন্ম যন্ত্রণার কথা এখন বোধ হয় অনেকটাই ভুলে গেছেন রুদ্র কিংবা চলমান নোয়াখালী। তা না হলে এত সাহস কোথায় পান? চলমান নোয়াখালীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ইস্যুর জন্য লিখেছেন জামাল হোসেন বিষাদ...Details
Showing Page 3 of 5 Go to first page Go to previous page   3