সেনবাগে ৬৯’র গণআন্দোলনে নিহত চার শহীদকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেওয়ার দাবী
11
নিজস্ব প্রতিনিধি
’৬৯ এর গণআন্দোলনে নোয়াখালীর সেনবাগে পুলিশের গুলিতে নিহত চার শহীদের রাষ্ট্রীয়স্বীকৃতির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ হয়েছে। শুক্রবার সকালে সেনবাগ থানার মোড়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠন এ কর্মসূচির আযোজন করেন।
শুক্রবার ১০টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চলা এ মানববন্ধন ও সমাবেশে রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। এতে বক্তব্য রাখেন সেনবাগ লেখক ফোরামের সভাপতি মুহাম্মদ আবু তাহের, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আমান উল্যাহ্, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি তালেবুজ্জামান, সেনবাগ প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. খোরশেদ আলম, সেনবাগ সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি আবু নাছের দুলাল প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, স্বাধীনতার প্রথম শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে ’৬৯ এর ১৯ ফেব্রুয়ারি সেনবাগ থানা কালো পতাকা উত্তেলন করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে অফিজের রহমান, খুরশিদ আল, সামছুল হক ও আবুল কালাম নিহত হন এবং গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন আরও ১০-১২জন। ওই ঘটনাটি দেশ-বিদেশে ব্যপক আলোড়ণ সৃষ্টি হয়। কিন্তু দেশ স্বাধীনের পর দীর্ঘ ৪৭ বছর পরও ’৬৯ এর গণআন্দোলনে নিহত এই চার শহীদকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি, যা অত্যন্ত দু:খজনক। তাই বক্তারা অভিলম্বে ’৬৯ এর গণআন্দোলনে নিহত এই চার শহীদকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি এবং ‘সেনবাগ শহীদ দিবস’ ঘোষণা দেওয়ার দাবী জানান।