৫ জানুয়ারির মতো দেশে আর কোনো নির্বাচন হতে দেব না- মওদুদ
13
নিজস্ব প্রতিনিধি
বিএনপি’র জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ যদি মনে করে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মতো আরেকটি নির্বাচন করবেন- তাহলে ভুল করবেন। দেশের মাটিতে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মতো আর কোনো নির্বাচন হতে দেব না। তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন করবো, কারণ আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। কিন্তু সে নির্বাচনের জন্য এমন একটি পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে যাতে করে সকল মানুষ নির্দ্বিধায় ভোট দিতে পারে, ভোটের অধিকার যাতে তারা ফিরে পায়। সে জন্য নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করার করতে আমাদেরকে সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। যদি সমোঝতা তারা না চায় তাহলে আন্দোলনের বিকল্প ছাড়া আমাদের হাতে আর কিছু নেয়।
নোয়াখালী জেলা শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে জেলা বিএনপি’র কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশ অত্যন্ত গভীর সংকটে রয়েছে, আমরা ভোটের অধিকার হারিয়েছি, গণতন্ত্র হারিয়েছি, মৌলিক অধিকার হারিয়েছি, আইনের শাসন হারিয়েছি। এমুহুর্তে এসে সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতাও হারিয়েছি। শেষে এসে বিচার বিভাগের স্বাধীনতাও হারিয়ে ফেলেছি। আমাদেরকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে, গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে। সুতরাং এসব অধিকার ফিরিয়ে আনতে হলে জাতীয়তাবাদী দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ২০ দলীয় জোটের মাধ্যমে দেশের হারিয়ে যাওয়া অধিকারগুলো ফিরিয়ে আনতে হবে।
মওদুদ আহমদ বলেন, আমরা চাই একটি সমোঝতার মাধ্যমে সংকটের সমাধান হোক। গত প্রায় দুই বছর হলো আমরা আন্দোলনমুখী কোনো কর্মসূচি দেয়নি। আমরা অনেক ধর্য্য ধারণ করেছি। যদিও আমাদের অগণিত নেতা-কর্মীদের সকলের বিরুদ্ধে মামলার পর মামলা হয়েছে, এখনও হচ্ছে। হয়রানি, সরকারের ঝুলুম নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে, তারপরও আমরা ধর্য্য ধরে আছি এই জন্য যে, আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। সেজন্য আমরা একটা পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাই, যাতে করে একটি সমোঝতার মাধ্যমে আমরা আগামীতে একটি সুষ্ঠ, অবাধ নির্বাচন করতে পারি। এবং এই সমোঝতা সরকার যদি করেন? আমি মনে করি শেষ মুহুর্তে হলেও সরকার এগিয়ে আসবেন এবং সমোঝতার চেষ্টা করবেন।
সভায় জেলা বিএনপি’র সভাপতি গোলাম হায়দার বিএসপি সভাপতিত্ব করেন। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহাজাহান, বরকত উল্লা বুলু, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম ও শামীমা বরকত লাকী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আবদুর রহমান, জেলা ছাত্র দলের সভাপতি নুরুল আমিন খান প্রমুখ।

রাজনৈতিক সংবাদ