সোনাইমুড়ি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শত বছর উদযাপন
13
নিজস্ব প্রতিনিধি
উৎসব মুখর পরিবেশে ও ‘প্রাণের টানে প্রিয় প্রাঙ্গনে’ স্লোগানে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলায় সোনাইমুড়ি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শত বছর উদ্যাপন করা হয়েছে। শনিবার দিনব্যাপী স্মৃতিচারণ, গান, আলোচনা, খাওয়া-দাওয়াসহ নানা মজা-মস্তীর মধ্য দিয়ে শতবর্ষ উদ্যাপিত হয়। এতে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, বর্তমান শিক্ষার্থী, শিক্ষক, রাজনীতিক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সহস্রাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
পুরো দিনটিই ছিল অন্য রকম। সু-শৃঙ্খলভাবে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আমন্ত্রিতরা ও রেজিষ্ট্রেশনধারীরা আসা-যাওয়া করতে থাকে। একে অন্যের সঙ্গে কুশল বিনিময়, হাসি-ঠাট্টা-তামাশার মধ্য দিয়ে কাটিয়ে দেয় বেলা। দৃষ্টি নর্দন প্যান্ডেল। নির্দিষ্ট স্থানের আসন পেতেই বসে ছিল সহ¯্রাধিক মানুষ। সবচেয়ে দেখার বিষয় ছিল মঞ্চ। সেখানে ছিল না নেতা-নেত্রির ভীড়। সকলেই মঞ্চের সামনে অবস্থান করছিল। যখন যে অতিথি প্যান্ডেলে এসেছেন তিনিই বক্তব্য রেখেছেন। সেখানে কোনো রাজনীতিক বাড়াবাড়ি বা জৈষ্ঠ্যতার ভিত্তিকে বক্তব্য দেয়ার হিড়িকও ছিল না। সকল দলমত নির্বিশেষে সেখানে উপস্থিত ছিলেন অসংখ্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বক্তব্য, স্মৃতিচারণের পাশাপাশি ছিল গান, কৈতুক, অভিনয়সহ নানা আনন্দদায়ক ও মনমুগ্ধকর আয়োজন। ফলে হাজারো মানুষের মধ্যে কেউ বিরক্তবোধ করেনি। দুপুরের আগ মুহুর্তে পুরো মঞ্চ মাতিয়ে রেখেছিল নোয়াখালী-৩ এর সাবেক সাংসদ ও বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বরকত উল্যা বুলুর সহধর্মীনি শামিমা বরকত লাকির পরিবেশিত গান। পুরো অনুষ্ঠান কখনও আবেগি, কখন আফ্লুত আবর কখনও হৈহুল্লড়ের মধ্য দিয়ে কেটেছে সকলের। বর্তমান সাংসদ, সাবেক সাংসদ আওয়ামীলীগ বিএনপিসহ বিভিন্ন বড় রাজনীতিকদের সৌহার্দপুর্ণ আচরণ ছিল দেখার মতো। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠান এক মহামিলন মেলায় পরিণত হয়েছিল।  
সকালে জাতীয় ও বিদ্যালয়ের ব্যাচভিত্তিক পাতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে দিনটির উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এর পর মডেল উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও শতবর্ষ উদযাপেনর আহবায়ক মাহফুজুর রহমান বাহারের সভাপতিত্বে এবং শতবর্ষ উদযাপন কমিটির উপদেষ্টা ও সোনাইমুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমিনুল ইসলাম বাকেরের সঞ্চলনায় এতে অতিথি ছিলের মোরশেদ আলম এমপি, এ এইচ এম ইব্রাহিম এমপি, কেন্দ্র্রীয় আওয়ামী লীগের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সাংসদ অধ্যাপক মোহাম্মদ হানিফ, সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিপির ভাইস চেয়ারম্যার বরকত উল্যা বুলু, সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, নোয়াখালী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ এবিএম জাফর উল্যাহ, এস এ টিভির চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন আহম্মেদ, সোনাইমুড়ী অন্ধ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, বিশিস্ট শিল্পপতি খন্দকার রুহুল আমিন, লায়ন জুনাব আলীসহ অসংখ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিত্ব।
রাতে বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিল্পিদের আয়োজনে মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। এছাড়া দিনব্যাপী মঞ্চে স্থানীয় শিল্পিদের গান পরিবেশন উপস্থিত হাজারো মানুষকে মুগ্ধ করেছিল।
চলতি সংবাদ